স্বামীর উপর রাগ করে বাসা থেকে বেরিয়ে গনধর্ষনের শিকার গৃহবধু গ্রেফতার দুই

অথর
জে এন এস নিউজ ডেক্স :   কুষ্টিয়া
প্রকাশিত :৩ জুন ২০২১, ৩:৪৫ পূর্বাহ্ণ | পঠিত : 26 বার
স্বামীর উপর রাগ করে বাসা থেকে বেরিয়ে গনধর্ষনের  শিকার গৃহবধু গ্রেফতার দুই

স্বামীর উপর রাগ করে পিতার বাড়িতে যাওয়ার সময় গনধর্ষনের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধু। এ ঘটনায় পুলিশ লিটু (২৮) ও শিমুল (৩০) নামে দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে। গনধর্ষনের ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার জেলার শৈলকুপা উপজেলার দক্ষিন গোপালপুর গ্রামে। বুধবার ভোরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে নিত্যানন্দনপুর ইউনিয়নের বাগুটিয়া গ্রামের এমপির মোড় থেকে দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত লিটু গোপালপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক ও শিমুল একই গ্রামের বছির উদ্দীনের ছেলে। এঘটনায় পলাতক রয়েছে নিত্যানন্দনপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বর গোপালপুর গ্রামের রাশিদুল ইসলাম। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শৈলকুপা থানার ওসি (তদন্ত) মহসীন হোসেন খবর নিশ্চিত করে বুধবার দুপুরে জানান, ভিকটিম স্বামীর সঙ্গে ঝিনাইদহ শহরে ভাড়া বাসায় থাকতেন। গত ২৭ মে বিকালে স্বামীর সঙ্গে রাগ করে ভিকটিম পিতার বাড়ি শৈলকুপার শাহবাজপুর গ্রামে যাচ্ছিলেন। পথে নিজ গ্রামের প্রতিবেশী লিটুর সাথে দেখা হলে লিটু বাড়ি পৌছে দেওয়ার কথা বলে মোটরসাইকেলে তুলে বিভিন্ন রাস্তা ঘুড়িয়ে সময় ক্ষাপন করে রাত করে ফেলে। এ সময় লম্পট লিটু তার সহযোগী শিমুল ও ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বর গোপালপুর গ্রামের রাশিদুল ইসলামকে ফোনে ডেকে নেয়। এরপর ভিকটিমকে শৈলকুপার দক্ষিণ গোপালপুর গ্রামের মাঠে ক্যানেলের ধারে কলা ক্ষেতে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে ধর্ষক লিটু ও শিমুল ভিকটিমকে মোটরসাইকেল যোগে ঘটনার দিন রাতেই ঝিনাইদহ শহরের র‌্যাব ক্যাম্পের পাশে ভাড়া বাসার সামনে ছেড়ে দেয়। ভিকটিম অসুস্থ্য হয়ে বাসায় পৌছে সব ঘটনা খুলে বলে। স্বামী তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় সোমবার রাতে শৈলকুপা থানায় ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা হলে পুলিশ ধর্ষক লিটু ও শিমুলকে গ্রেফতার করে। শৈলকুপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, ধর্ষিতার জবানবন্দি গ্রহন করা হয়েছে। দুই আসামী গ্রেফতার হয়েছে। বাকী একজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 + 16 =