মহামারি করোনায় মানবিক সেবায় ছুটে চলা লাল্টু রহমানের

অথর
জে এন এস নিউজ ডেক্স :   কুষ্টিয়া
প্রকাশিত :৫ জুলাই ২০২১, ৮:২১ পূর্বাহ্ণ | পঠিত : 78 বার
মহামারি করোনায় মানবিক সেবায় ছুটে চলা লাল্টু রহমানের

মাজহারুল হুসাইন দুর্জয় কুষ্টিয়া: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে মহামারী করোনা সংক্রমণ রোধে গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়নের হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী লাল্টু রহমান । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লকডাউন ঘোষণা পর থেকে ইউনিয়নের কর্মহীন অসহায় মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

তিনি বলেন, প্রথম ধাপের লকডাউন থেকে এখন পর্যন্ত ইউনিয়নের অসহায় কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য ও ত্রাণ সামগ্রীসহ মাক্স বিতরণ করে যাচ্ছি আমার সার্ধনুযায়ী। করোনার মহাসংকটে লকডাউনে অসহায় কর্মহীন মানুষের মাঝে শুধু ত্রাণ সামগ্রীই নয় ইতোমধ্যে নিজ উদ্যোগে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ, ফ্রি টেলিমেডিসিন সেবা চালু করেছি। যতদিন এই করোনার মহাসংকট দূর না হবে ততদিন পর্যন্ত আমার ত্রাণ ও খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।’

ইউনিয়নের সচেতনমহল বলেন, ‘করোনার মহাসংকটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশে পূর্বের ন্যায় বর্তমানেও এই যুবলীগ নেতা কর্মহীন, ছিন্নমূল, অসহায় মানুষের পাশে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি একটি মানবিক সংগঠনে পরিণত হয়েছে। তিনি নিজের জীবন বাজি রেখে অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছেন। খাদ্য সহায়তা, ফ্রি চিকিৎসাসেবা প্রদান থেকে সকল কাজের সঙ্গে এই কর্মীর সম্পৃক্ত রয়েছে। করোনায় অসহায়, কর্মহীন মানুষকে খাদ্য সহায়তা বিতরণ করে যাচ্ছেন। সর্বমহলে তিনি এখন মানবিক ফেরিওয়ালা লাল্টু নামেই পরিচিত।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী লাল্টু রহমান আরো বলেন, ‘অতিমারি করোনার মহাসংকটে পূর্বের ন্যায় বর্তমানেও আমি মানবতার কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি। আমি বিশ্বাস করি মানুষকে ভালোবাসলেই, মানুষকে সাহায্য করলেই কেবল মাত্র মানুষের ভালোবাসা পাওয়া যায়। দেশের যেকোনো সংকটে আমি সবসময় মানুষের পাশে ছিলাম, আছি, থাকবো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার পাশে থেকে দেশ সেবা করে যাবো।’

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight + one =